কক্সবাজারে দুই লাখ রোহিঙ্গা ও স্থানীয় জনগোষ্ঠীর মাঝে সৌদি সরকারের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ কক্সবাজারে দুই লাখ রোহিঙ্গা ও স্থানীয় জনগোষ্ঠীর মাঝে সৌদি সরকারের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

সোমবার, ২১ Jun ২০২১, ০৮:৫৯ অপরাহ্ন







কক্সবাজারে দুই লাখ রোহিঙ্গা ও স্থানীয় জনগোষ্ঠীর মাঝে সৌদি সরকারের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

কক্সবাজারে দুই লাখ রোহিঙ্গা ও স্থানীয় জনগোষ্ঠীর মাঝে সৌদি সরকারের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

কক্সবাজারে দুই লাখ রোহিঙ্গা ও স্থানীয় জনগোষ্ঠীর মাঝে সৌদি সরকারের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ
কক্সবাজারে দুই লাখ রোহিঙ্গা ও স্থানীয় জনগোষ্ঠীর মাঝে সৌদি সরকারের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

শাহজাহান চৌধুরী শাহীন, কক্সবাজার : সৌদি আরব সরকারের পক্ষ থেকে কক্সবাজারে দু্ই লাখ বাস্তুচ্যুত মিয়ানমার নাগরিক ও বাংলাদেশী দরিদ্র জনগোষ্ঠীর প্রায় ৮০ হাজার পরিবারের মাঝে সপ্তাহ ব্যাপী খাদ্য সামগ্রী বিতরণ শুরু হয়েছে।

কিং সালমান হিউম্যানিটারিয়ান এইডএন্ড রিলিফ সেন্টারের অর্থায়নে, মুসলিম ওয়ার্ল্ড লীগের সহযোগিতা ও আল্লামা ফজলুল্লাহ ফাউন্ডেশনের ব্যবস্থাপনায় এই মানবিক সহায়তা কার্যক্রম চলছে।

মঙ্গলবার ও সোমবার সকালে কক্সবাজার জেলার উখিয়ার কুতুপালং ১০নং ক্যাম্পসহ বেশকয়েকটি রোহিঙ্গা শিবিরে খাদ্য সামগ্রী বিতরন করা হয়।

এতে প্রধান অতিথি ছিলেন, আল্লামা ফজলুল্লাহ ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান, চট্টগ্রাম-১৫ আসনের সংসদ সদস্য প্রফেসর ড. আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামুদ্দিন নদভী।

এছাড়া অন্যান্যদের মধ্যে কিং সালমান হিউম্যানিটারিয়ান এইডএন্ড রিলিফ সেন্টারের সিনিয়র অফিসার ড.তাহা বিন উমর আলখতীব ও বাংলাদেশেরকান্ট্রি ডিরেক্টর তুর্কী সাঈদ আল গামেদী সহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।

খাদ্য সামগ্রীর প্যাকেট বিতরণের বিশাল এ প্রকল্পের মাধ্যমে বাংলাদেশের স্থানীয় নাগরিকসহ উখিয়ার কুতুপালং ও ভাসানচরে বলপ্রয়োগে বাস্তুচ্যুত মিয়ানমারের দুই লাখ রোহিঙ্গা শরণার্থী উপকৃত হবে বলে জানানো হয় সংস্থার পক্ষ থেকে।
এনজিও এ্যাফেয়ার্সব্যুরোসহ সংশ্লিষ্ট সরকারী সংস্থার সাথে সমন্বয় করে খাদ্য প্যাকেট বিতরণ কার্যক্রমটি তত্বাবধান করছেন আল্লামা ফজলুল্লাহ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ড. আবুল আলা মুহাম্মদ হোছামুদ্দিন।

উল্লেখ্য, কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্প ও স্থানীয় বাসিন্দাদের মাঝে ইতিপূর্বেও বাংলাদেশ সরকারের সহায়োগিতায় আরও একাধিকবার সৌদি আরব সরকারের এই মানবিকসহায়তা প্রদান করা হয়। যা আগামীতেও অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

শেয়ার করুন




All Rights Resrved & Protected