যেভাবে রেলমন্ত্রীর নজরে আসেন দিনাজপুরের শাম্মী যেভাবে রেলমন্ত্রীর নজরে আসেন দিনাজপুরের শাম্মী

মঙ্গলবার, ২২ Jun ২০২১, ০৪:৪৭ পূর্বাহ্ন







যেভাবে রেলমন্ত্রীর নজরে আসেন দিনাজপুরের শাম্মী

যেভাবে রেলমন্ত্রীর নজরে আসেন দিনাজপুরের শাম্মী

রেলমন্ত্রীর বিয়ে
রেলমন্ত্রীর নজরে আসেন দিনাজপুরের শাম্মী

শনিবার (০৫ জুন) ইসলামী শরিয়ত ও সরকারি আইন মেনে দিনাজপুরের মেয়ে শাম্মী আকতার মনিকে (৪২) বিয়ে করেছেন রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন। প্রথম স্ত্রী মারা যাওয়ার প্রায় আড়াই বছর পর দ্বিতীয় বিয়ে করলেন রেলমন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজন। বিয়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রেলমন্ত্রী নিজেই। 

জানা যায়, দিনাজপুরের বিরামপুর নতুন বাজার এলাকার মৃত আব্দুর রহিমের মেয়ে শাম্মী আকতার। যার বয়স ৪৫ বছর। পেশায় তিনি একজন আইনজীবী। শাম্মীরা দুই ভাই এক বোন। দুই ভাই বর্তমানে বিরামপুরের অই বাসায় থাকেন। বড় ভাই মিলন হোসেন একজন ইলেকট্রিক ব্যবসায়ী। অপরজন এলাকার স্থানীয় ব্যবসায়ী। পুর্বে তাদের আগের বাড়ি ছিল পাবনায়।

আরো পড়ুনঃ দিনাজপুরের জামাই হলেন রেলমন্ত্রী

বোন শাম্মীর বিয়ের বিষয়টি নিশ্চিত করে মিলন বলেন, আমার বোন আইন বিভাগে পড়াশোনা শেষ করে, হাইকোর্টে সিনিয়রের সঙ্গে প্র্যাকটিস করছেন। আইনি বিষয়ে পরামর্শ নিতে ২০ দিন আগে রেলমন্ত্রীর কাছে যায় আমার বোন। এরপর আমার বোনকে মন্ত্রীর পছন্দ হয়। পারিবারিকভাবে ৫ জুন উত্তরায় আমার বোনের বাসায় তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়। এই বিয়েতে বর পক্ষে উপস্থিত ছিলেন, বিরামপুরের বিচারপতি ইজারুল হক ও তার স্ত্রী। কনে পক্ষে ছিলাম আমি ও আমার ভাই উপস্থিত । আনুষ্ঠানিকভাবে খুব ছোট পরিসরে যতটুকু দরকার; সেভাবে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা হয়েছে।

নূরুল ইসলামের ১ম স্ত্রী নিলুফার জাহান ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগের দিন মারা যান। তাদের এক ছেলে ও দুই মেয়ে আছে। তিন সন্তানেরই বিয়ে হয়েছে।

৬৫ বছর বয়সী নূরুল ইসলাম ১৯৫৬ সালের ৫ জানুয়ারি পঞ্চগড়ে জন্ম গ্রহণ করেন। তিনি পঞ্চগড়-২ (বোদা-দেবীগঞ্জ) আসন থেকে ৯ম, ১০ম ও ১১ তম জাতীয় সংসদের সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হন। ২০১৮ সালে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তৃতীয়বারের মত সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হওয়ার পর রেলমন্ত্রী হিসেবে সরকারের মন্ত্রিসভায় যুক্ত হন।

শেয়ার করুন




All Rights Resrved & Protected