বিজ্ঞান-প্রযুক্তিশীর্ষ খবর

মোবাইল গ্রাহকদের জন্য দু:সংবাদ

দেশে মোবাইল ফোন গ্রাহকরা তাদের গ্রাহক সুবিধা পেতে কিছুটা সমস্যার মুখোমুখি হতে পারেন বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন রেগুলেটরি কমিশনের (বিটিআরসি) ।  তাদের মতে, নতুন ওয়েভ ফর্ম্যাট পরিবর্তনের কারণে গ্রাহকরা ১ ও  ৮ এপ্রিল এ জাতীয় সমস্যার মুখোমুখি হতে পারেন । সংস্থাটি গ্রাহকদের এ সমস্যা নিয়েও দুঃখ প্রকাশ করেছে ।

 

সোমবার (২৯ মার্চ) বিটিআরসি একটি বিবৃতি জারি করে যেখানে জানায় , প্রথম পর্যায়ে ১৮০০ মেগাহার্টজ তরঙ্গ ফরম্যাটের কারণে ১ এপ্রিল রাত ১১ টা থেকে ২ এপ্রিল সকাল ৮ টা পর্যন্ত এবং দ্বিতীয় পর্যায়ে নতুন ২১০০ মেগাহার্টজ তরঙ্গ ফর্ম্যাটের জন্য রাত ১১ টা থেকে ৬ টা পর্যন্ত মোবাইল ফোন পরিষেবা ব্যাহত হতে পারে ।

 

৮ ই মার্চ, সরকার সকল মোবাইল অপারেটরদের  কাছে  ৬৭৩৪ কোটি টাকায় তরংগহাটর্জ  বিক্রি করেছিল। এই নিলামে ২৬.৪ মেগাহার্টজ তরঙ্গ এই পরিমাণ অর্থের জন্য বিক্রি হয়েছিল। অপারেটরদের কাছ থেকে পাঁচ বছরের কিস্তিতে এই অর্থ পাওয়া যাবে।

 

মোবাইল ফোন অপারেটররা নেটওয়ার্ক উন্নত করতে তরঙ্গ কিনে নিয়েছে, যা আফ্রিকার ইথিওপিয়া-সুদানের চেয়ে দশ শতাংশ পিছিয়ে রয়েছে। নিলামে পুরো ২৬.৪ মেগাহার্টজ তরঙ্গটি তিনটি বেসরকারী অপারেটর কিনেছিল। গ্রামীণফোন দুটি ব্যান্ডে সর্বোচ্চ ১০.৪ মেগাহার্টজ কিনেছে। নিলামে অংশ নিয়েও সরকারী অপারেটর টেলিটক কোনও  তরঙ্গ ঢেউ না কিনে ফিরে এসেছে । বিটিআরসি বলছে মোট  মূল্যের এক-চতুর্থাংশ অবশ্যই ২২ মার্চের মধ্যে প্রদান করতে হবে।

 

আন্তর্জাতিক ইন্টারনেটের গতি পরিমাপ সংস্থা ওক্লার সর্বশেষ প্রতিবেদন অনুসারে, দেশে মোবাইল ইন্টারনেটের গড় ডাউনলোডের গতি বর্তমানে ১০.৫৬ এমবিপিএস এবং আপলোডের গতি ৬.১৯ এমবিপিএস। এই অবস্থা  নিয়ে, বিশ্বের ১৪০ টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশ ১৩৬ তম স্থানে রয়েছে। আফ্রিকার দুর্বল দেশ  ইথিওপিয়া-সুদানের চেয়ে যা কম ।

 

নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি মোবাইল ফোন সার্ভিসের সমস্যা সমাধানের জন্য ৮ মার্চ একটি তরঙ্গ নিলাম অনুষ্ঠিত হয় । ২১০০ মেগাহার্টজ ব্যান্ডে, রবি এবং গ্রামীণফোন নবম ব্লকে ৫ মেগাহার্টজ তরঙ্গ বরাদ্দ পাওয়ার প্রতিযোগিতা করছে। ৬ ঘন্টা লড়াইয়ের শেষে, গ্রামীণফোন রবিকে ২৬ মিলিয়ন ডলারে হারিয়েছে এবং বেস ওয়েভটি ৪৮.৭ মিলিয়ন ডলারে কিনেছিল। তবে, সরকারী অপারেটর টেলিটক নিলামে অংশ নিয়েও কোনও তরঙ্গ না কিনে ফিরে যায় ।

 

নিলাম শেষে জানানো হয় , গ্রামীণফোনের দুটি ব্যান্ডে ১০.৪ মেগাহার্টজ রয়েছে; রবি ৭.৮  মেগাহার্টজ এবং বাংলালিংক কিনেছে ৯.৪ মেগাহার্টজ।

 

আগামি ২২ শে মার্চের মধ্যে ক্রয়ের মূল্যের ২৫ শতাংশ পরিশোধ করতে হবে ,  তারপরেও অতিরিক্ত তরঙ্গ পরিষেবা সরবরাহ করতে আরও এক থেকে দেড় মাস সময় লাগবে।

 

নতুন তরঙ্গের সাথে সাথে গ্রামীণফোনের তরঙ্গের পরিমাণ বেড়েছে ৪৭.৪ মেগাহার্টজ; রবির ৪৪ মেগাহার্টজ এবং বাংলালিংকের ৪০ মেগাহার্টজ।

 

বিটিআরসির মতে, গ্রামীণফোনের বর্তমানে মাত্র ৮ কোটি গ্রাহক রয়েছে। রবির বর্তমানে  ৫ কোটি ১৫ লাখ গ্রাহক রয়েছে । বাংলালিংকের ৩ কোটি ৫৯ লক্ষ গ্রাহক এবং টেলিটকের গ্রাহক রয়েছে ৫৫ লাখ।

Back to top button
%d bloggers like this: