পুত্রবধূ নিপুণ রায়কে নিয়ে আবেগপ্রবণ কণ্ঠে যা বললেন গয়েশ্বর চন্দ্র রায় পুত্রবধূ নিপুণ রায়কে নিয়ে আবেগপ্রবণ কণ্ঠে যা বললেন গয়েশ্বর চন্দ্র রায়

সোমবার, ২১ Jun ২০২১, ০৮:৫০ অপরাহ্ন







পুত্রবধূ নিপুণ রায়কে নিয়ে আবেগপ্রবণ কণ্ঠে যা বললেন গয়েশ্বর চন্দ্র রায়

পুত্রবধূ নিপুণ রায়কে নিয়ে আবেগপ্রবণ কণ্ঠে যা বললেন গয়েশ্বর চন্দ্র রায়

অ্যাডভোকেট নিপুণ রায় চেীধুরী
অ্যাডভোকেট নিপুণ রায় চেীধুরী

কারাগারে পুত্রবধূ অ্যাডভোকেট নিপুণ রায় চেীধুরীকে নিয়ে আবেগপ্রবণ কণ্ঠে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেছেন, আমি তাকে আমার কর্মীর মতো মনে করি। আই ফিল প্রাউড তার মতো কর্মীই দরকার। আর সে যদি দেশের জন্য জীবন দেয়, মুশতাকের (কারাগারে মারা যাওয়া কার্টুনিস্ট মুশতাকের আহমেদ) মতো ভাগ্যবরণ করে তাহলে আমি চোখের জল ফেলবো না।

শুক্রবার (১১ জুন) সকালে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, আমাদের রাষ্ট্র চলছে যে জয়েন্ট ভেনচারে তাতে আমার মনে হয়- মোর দেন ৬০ শতাংশ পরের কর্তৃত্ব আর লেস দেন ৪০ শতাংশ হলো আমাদের কর্তৃত্ব। দেশের মালিক যদি জনগণ না হয়, রাষ্ট্রের মালিক যদি রাষ্ট্র না হয়, রাষ্ট্র যদি জয়েন্ট ভেনচারে চলে তাহলে নিপুণ রায়দের এই দুর্দশা হবে এবং আপনাদেরও এই অবস্থা হবে-এই জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে।

তিনি আরও বলেন, নিপুণের ওপর যে অত্যাচারটা হচ্ছে জাস্ট লাইক এ কনডেম সেল। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে আধা ঘন্টা থেকে ১৫মিনিটের বেশি তার সেলের লক খোলা হয় না। তাই নিপুণের ভবিষ্যতটা যদি মুশতাক (কারাগারে মারা যাওয়া কার্টুনিস্ট মুশতাক আহমেদ) মতো হয়- এটা আশ্চার্য হওয়ার কিছু নেই। সেখানে (জেলে) ডাক্তার আছেন এরা বলবেন, তার স্বাভাবিক মৃত্যু। সুতরাং নিপুণকে কষ্ট দেওয়াটা সরকারের পক্ষে যত না দায়িত্ব, তার চেয়েছে বেশি দায়িত্ব তার পার্টনারকে খুশি করাটা। সেই কারণে নিপুণদের ভাগ্য এরকম হবে।

গয়েশ্বর বলেন, আমি নিপুণের মুক্তির চেয়ে দেশবাসীর মুক্তি, গণতন্ত্রের মুক্তিটাই শ্রেয় মনে করি। আমাদের খালেদা জিয়া তাই দেখে। আমাদের মরতে হবে, লড়তে হবে, দেশটাকে মুক্ত করতে হবে। দেশ মুক্ত হলে খালেদা জিয়া ও নিপুণও মুক্তি পাবে।

কারাবন্দি নিপুণ রায় চৌধুরীর বাবা দলের ভাইস চেয়ারম্যান নিতাই রায় চৌধুরী বলেন, আমার মেয়ে জেলখানায় অবর্ণনীয় কষ্টের মধ্যে আছে। তার জণ্ডিস হয়েছে, সেটাও আমাদেরকে জানানো হয়নি। তার সঙ্গে কাউকে দেখা করতে দেওয়া হয় না, কথা বলতে পারি না। এই যদি হয় আমাদের দেশের অবস্থা? আমরা কোথায় যাবো? আমাদের নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া যার হাত ধরে নিপুণ রাজনীতিতে এসেছে, তার সঙ্গেও এরকম অবর্ণনীয় নির্যাতন করা হচ্ছে। আমরা এই অবস্থার থেকে মুক্তি চাই, আমরা তাদের নিঃশর্ত মুক্তি চাই।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সদস্য সচিব অ্যাডভোকেট ফজলুর রহমান, আইন বিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার কায়সার কামাল, নিপুণ রায় চৌধুরীর আইনজীবী অ্যাডভোকেট মাসুদ আহমেদ তালুকদার প্রমুখ। এছাড়াও কেন্দ্রীয় নেতা রিয়াজ উদ্দিন নসু, তাইফুল ইসলাম টিপু, শেখ রবিউল আলম, শায়রুল কবির খান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন




All Rights Resrved & Protected