ভাইরালরকমারি

৩ স্ত্রী’র সহযোগিতায় চতুর্থ বিয়ের জন্য পাত্রী খুঁজছেন!

অনলাইনে বিয়ের জন্য পাত্রী খুঁজছিলেন ২২ বছরের যুবক। দেখে শুরু হয় হাসাহাসি আর ট্রোলিং। সেই যুবক অবশ্য এসবে দমে যাননি। চতুর্থ বিয়েটা করেই ছাড়বেন তিনি। আর এতে পূর্ণ সমর্থন রয়েছে তার বাকি তিন স্ত্রীর।

ওই যুবকের নাম আদনান। পাকিস্তানের সিয়ালকোটের বাসিন্দা। ১৬ বছর বয়সে প্রথম বিয়ে করেন তিনি। তখন তিনি স্কুলে পড়েন। এরপর এক এক করে আরও দু’‌বার বিয়ে করেন তিনি‌। দ্বিতীয় স্ত্রী শুবানা, তৃতীয় স্ত্রী শাহিদা।

প্রথম স্ত্রী পাত্রী শুম্বলের গর্ভে তিন সন্তান রয়েছে। দ্বিতীয় স্ত্রীর গর্ভে দুই সন্তান। তাদের মধ্যে একজনকে দত্তক নেন তৃতীয় স্ত্রী শাহিদা। তিন স্ত্রীর মধ্যে দারুণ বোঝাপড়া। এখন তিন স্ত্রী স্বামীকে জোর দিচ্ছেন চতুর্থ বিয়ের জন্য।

আদনানের শর্ত, চতুর্থ স্ত্রীর নামের আদ্যক্ষরও ‘‌শ’‌ হতে হবে। আর বিয়ের আগে দেখাও করতে চান তিনি। এত বড় সংসার চালান কীভাবে?‌ আদনানের উত্তর, ৬ কামরার বাড়ি রয়েছে তার। মাসে সংসার চালাতে দেড় লক্ষ টাকার দরকার পড়ে। আসলে প্রথম বিয়ের পরেই নাকি ভাগ্য ঘুরে যায় তার। তারপর উন্নতি হতেই থাকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
%d bloggers like this: