বিশেষ প্রতিবেদন

মুক্তিযোদ্ধার বাড়িতে সন্ত্রাসী হামলা

পটুয়াখালীর দুমকিতে একজন মুক্তিযোদ্ধার বাড়িতে সন্ত্রাসী হামলা,লুটপাট ও ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

গত বুধবার (৩১ মার্চ)  এ হামলা ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনাটি ঘটেছে।ক্ষতিগ্রস্থ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের নিরাপত্তা ও আইনগত পদক্ষেপ নিতে থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়,উপজেলার জেএল-২৬,রাজাখালী মৌজায় এসএ ৩২৬ নং খতিয়ানের দাগ নং ২৭০৫ ক্রয়কৃত ২৫শতাংশ জমিতে বীর মুক্তিযোদ্ধা অবসর প্রাপ্ত সরকারী প্রাথমিক শিক্ষক সৈয়দ সাহাবুদ্দিন সম্প্রতি টিন শেডের একটি বসতঘর নির্মাণ করে বসবাস করছিল।

বুধবার সকাল সাড়ে ৬টার দিকে মুক্তিযোদ্ধার অনুপস্থিতিতে চরবয়েড়া গ্রামের চিহ্নিত মহিলা শিউলী,সোয়েব,হাবিব খানের নেতৃত্বে ৭/৮ জনের একটি সশস্ত্র সন্ত্রাসী বাহিনী আকস্মিক ওই বসতঘরে হামলা চালিয়ে টিনের চালা ও বেড়া ভাংচুর করে এবং নগদ ২৫হাজার ৫শ টাকা ও স্বর্ণালংকারসহ ১লক্ষ ৩৫হাজার টাকার মালামাল লুঠপাট করে নিয়ে যায়।

এসময় বাঁধা দিতে গেলে মুক্তিযোদ্ধার মামাত বোন হাচিনা বেগমকে (৪৫) বেদম মারধরে গুরুতর আহত হয়।আহতের চিৎকারে প্রতিবেশীরা ছুটে এলে লুটপাটকারীরা দ্রুত পালিয়ে যায়।স্বজনরা আহত হাছিনা বেগমকে উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করেছে।

এব্যাপারে বীর মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ সাহাবুদ্দিন বাদি হয়ে সোয়েব খান,শিউলী বেগম,হাবিব খানসহ ১২জনকে আসামী করে দুমকি থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।অভিযোগের তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই সিদ্দিক ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেছেন।দুমকি থানার অফিসার ইনচার্জ মেহেদী হাসান বলেন,এঘটনায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছে।তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Back to top button
%d bloggers like this: