আইন আদালতপ্রধান খবর (বাংলাদেশ)

যে কারনে রফিকুল ইসলাম (শিশুবক্তা) আটক

র‌্যাব জানিয়েছে , তারা রফিকুল ইসলাম নামে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে, যিনি ‘শিশু বক্তা ‘ হিসাবে বাংলাদেশে বেশ সুপরিচিত। 

‘রাষ্ট্রবিরোধী ও উস্কানিমূলক’ মন্তব্য করার অভিযোগে নেত্রকোনা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। তিনি বিভিন্ন জায়গায় ভাষণ দেওয়ার জন্য পরিচিত। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বাংলাদেশ সফরের বিরুদ্ধে সাম্প্রতিক সময়ে কয়েকটি প্রতিবাদে রফিকুল ইসলাম কে অত্যন্ত কঠোর ভাষায় কথা বলতে দেখা গেছে।

শিশুবক্তা সম্পর্কে :

ফেসবুক এবং ইউটিউবে তাঁর যে ছবি ও ভিডিও রয়েছে তা বিশ্লেষণ করে দেখা যায় যে তার কণ্ঠস্বর, শারীরিক গঠন এবং মুখের কারণে তাকে তরুণ ছেলের মতো দেখায়। এই ছোট ব্যক্তির বয়স সম্পর্কে কোনও পরিষ্কার তথ্য পাওয়া যায়নি, তবে একটি সাধারণ বিশ্বাস রয়েছে যে তাঁর বয়স বিশ থেকে ত্রিশ বছরের মধ্যে।

র‌্যাবের মুখপাত্র কমান্ডার আল মইন বলেছেন, “আমরা তার আসল বয়সটি জানি না। তবে সে বয়সে সে শিশু নয়, আমরা নিশ্চিতভাবেই তা বলতে পারি।”

ইউটিউবে তার ওয়াজের কয়েকটি ভিডিওতে দেখা যায় , তিনি তার নামে ‘শিশু বক্তা’ যুক্ত করায় তিনি তাঁর প্রতিবাদ করেছেন এবং নিজেকে প্রাপ্তবয়স্ক বলে দাবি করেছেন।

তার অনুসারীরা তাকে রফিকুল ইসলাম মাদানী নামে চিনেন ।

 

যে জন্য রফিকুল ইসলামকে গ্রেপ্তকার :

কমান্ডার আল মইন জানান, দেশের বিভিন্ন স্থানে সাম্প্রতিক সহিংসতার পরিপ্রেক্ষিতে রফিকুল ইসলামকে আটক করা হয়েছে ।

“তিনি বেশ কিছুদিন ধরে বিভিন্ন জায়গায় ‘রাষ্ট্রবিরোধী’ এবং ‘উস্কানিমূলক’ বক্তব্য দিচ্ছেন। এ জাতীয় বক্তব্য দেওয়ার জন্য তাকে আটক করা হয়েছে।”

এর আগে, ২৫ শে মার্চ, ঢাকার বায়তুল মোকাররমে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ঢাকা সফরের প্রতিবাদকালে পুলিশ তাকে আটক করেছিল। অবশ্য পরে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

 

হেফাজতের বিবৃতি :

এদিকে , হেফাজতে ইসলামের সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল হক,  রফিকুল ইসলাম গ্রেপ্তারের পর তাঁর  মুক্তির দাবি করেছেন।

এক বিবৃতিতে সংগঠনটি  বলছে , রফিকুল ইসলাম তার ওয়াজের মাধ্যমে সাধারণ মানুষকে “দেশের প্রতি ভালবাসার” নামে “অবিচার, নিপীড়ন ও অত্যাচারের বিরুদ্ধে জাগ্রত হওয়ার আহ্বান জানিয়ে যাচ্ছিলেন ।”

বিবৃতিতে রফিকুল ইসলামের মুক্তি দাবি করা হয়েছে এবং অভিযোগ করা হয়েছে যে তাকে দেশের প্রথাগত আইন অনুসরণ করে গ্রেপ্তার করা হয়নি।

Back to top button
%d bloggers like this: