বায়তুল মোকাররমে ঈদুল আজহার ৫ জামাত অনুষ্ঠিত
English

বায়তুল মোকাররমে ঈদুল আজহার ৫ জামাত অনুষ্ঠিত

বায়তুল মোকাররমে ঈদুল আজহার ৫ জামাত অনুষ্ঠিত

বায়তুল মোকাররম
ফাইল ছবি

ঈদুল আজহার পাঁচটি জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে। ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মুহাদ্দিস হাফেজ মাওলানা ওয়ালিয়ূর রহমান খান পঞ্চম ও সর্বশেষ জামাতে ইমামতি করে। তার সাথে মুকাব্বির হিসেবে ছিলেন বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের খাদেম মো. শহীদুল্লাহ।

বুধবার (২১ জুলাই) সকাল ১০টা ৪৫ মিনিটে পঞ্চম ও সর্বশেষ জামাত অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে সকাল ৭টায় ঈদের প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হয়।

প্রথম জামাতে ইমামতি করেন বায়তুল মোকাররমের সিনিয়র পেশ ইমাম হাফেজ মুফতি মাওলানা মিজানুর রহমান, মুকাব্বির হিসেবে ছিলেন মসজিদের মুয়াজ্জিন মো. আতাউর রহমান। ঈদের দুই রাকাত নামাজের পর অনুষ্ঠিত হয় বিশেষ খুতবা। খুতবা শেষে মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হয় ঈদের প্রথম জামাত।

তারপর  সকাল ৮টায় অনুষ্ঠিত হয় দ্বিতীয় জামাত। জাতীয় মসজিদের পেশ ইমাম হাফেজ মুফতি মুহিব্বুল্লাহিল বাকী নদভী দ্বিতীয় জামাতে ইমামতি করেন। এতে মুকাব্বির হিসেবে ছিলেন বায়তুল মোকাররমের মুয়াজ্জিন হাফেজ ক্বারী কাজী মাসুদুর রহমান।

সকাল ৯টায় অনুষ্ঠিত হয় তৃতীয় জামাত। এতে ইমামতি করেন বায়তুল মোকাররম মসজিদের পেশ ইমাম হাফেজ মাওলানা এহসানুল হক, মুকাব্বির হিসেবে ছিলেন মুয়াজ্জিন হাফেজ ক্বারী হাবিবুর রহমান মেশকাত।

সকাল ১০টায় চতুর্থ জামাত অনুষ্ঠিত হয়। এতে ইমামতি করেন বায়তুল মোকাররমের পেশ ইমাম হাফেজ মাওলানা মুহিউদ্দীন কাসেম। মুকাব্বির হিসেবে ছিলেন বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের মুয়াজ্জিন ক্বারী মো. ইসহাক।

এদিকে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে ঈদুল আজহার জামাতে করোনা মহামারি থেকে মুক্তি এবং দেশ, জাতি ও বিশ্ব মুসলিম উম্মাহর কল্যাণ কামনা করে বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করা হয়েছে। এ সময় মুসল্লিরা দু’চোখের পানি ফেলে মহান স্রষ্টার কাছে দোয়া করেন।

উল্লেখ্য, করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে ঈদুল ফিতরের মতো ঈদুল আজহায় বেশ কিছু নির্দেশনা দিয়েছে সরকার। করোনা সংক্রমণ রোধে শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ধর্ম মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে ঈদের জামাত শেষে কোলাকুলি এবং হাত মেলানো থেকে বিরত থাকার অনুরোধ জানানো হয়েছে।

অন্যদিকে গত বছরের মতো এবারও হাইকোর্ট সংলগ্ন জাতীয় ঈদগাহে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হচ্ছে না। হচ্ছে না শত বছরের ঐতিহ্য ঐতিহাসিক শোলাকিয়া ময়দানের ঈদ জামাতও।

শেয়ার করুন


Advertisement




Ads Manager

All Rights Resrved & Protected