জাতীয় প্রেসক্লাবের নেতৃত্বে ফরিদা ইয়াসমিন-ইলিয়াস খাঁন
English

জাতীয় প্রেসক্লাবের নেতৃত্বে ফরিদা ইয়াসমিন-ইলিয়াস খাঁন

জাতীয় প্রেসক্লাবের নেতৃত্বে ফরিদা ইয়াসমিন-ইলিয়াস খাঁন

দেশের সাংবাদিকদের সবচেয়ে বড় ও প্রাচীন সংগঠন জাতীয় প্রেসক্লাবের ব্যবস্থাপনা কমিটির ২০২১-২২ মেয়াদের সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন ফরিদা ইয়াসমিন। সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন ইলিয়াস খান। ইতিহাসে প্রথমবারের মতো একজন নারী সভাপতি পেল জাতীয় প্রেসক্লাব। তিনি বিদায়ী কমিটির সাধারণ সম্পাদক।

বৃহস্পতিবার (৩১ ডিসেম্বর) করোনার স্বাস্থ্যবিধি মেনে উৎসবমুখর পরিবেশে সকাল ৯টায় জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে স্থাপিত ভোটকেন্দ্রে ভোটগ্রহণ শেষে সন্ধ্যায় নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করা হয়। বিকেল ৫টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে চলে ভোটগ্রহণ।

সভাপতি পদে ফরিদা ইয়াসমিন ৫৮১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। তার প্রতিদ্বন্দ্বী কামাল উদ্দন সবুজ পান ৩৯৫ ভোট। সাধারণ সম্পাদক পদে ইলিয়াস খান (৫৬৬) জয় পেয়েছেন।

এছাড়া সিনিয়র সহ-সভাপতি পদে হাসান হাফিজ (৪১৩), সহ-সভাপতি রেজোয়ানুল হক রাজা (৬১৫), যুগ্ম সম্পাদক মাঈনুল আলম (৫৭৭), মো. আশরাফ আলী (৩৯৫), কোষাধ্যক্ষ শাহেদ চৌধুরী (৭০৬) নির্বাচিত হয়েছেন।

সদস্য পদে জিতেছেন আইয়ুব ভূঁইয়া, জাহিদুজ্জামান ফারুক, ভানুরঞ্জন চক্রবর্তী, রহমান মুস্তাফিজ, রেজানুর রহমান, শাহনাজ সিদ্দিকী সোমা সৈয়দ আবদাল আহমদ, কাজী রওনাক হোসেন, বখতিয়ার রাণা, শাহনাজ বেগম পলি।

জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক মো. মোস্তফা-ই-জামিলের নেতৃত্বে সাত সদস্যের নির্বাচন পরিচালনা কমিটি এ নির্বাচন পরিচালনা করেন। কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন জাফর ইকবাল, মোস্তাফিজুর রহমান, এসএম শওকাত হোসেন, গৌতম অরিন্দম বড়ুয়া (শেলু বড়ুয়া), শামীমা চৌধুরী ও মো. মনিরুজ্জামান।

এবারের নির্বাচনে ১৭টি পদে সর্বমোট ৪৬ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। নির্বাচনের দু’টি প্যানেল ছিল। ফরিদা-ফারুক পরিষদ এবং সবুজ-ইলিয়াস পরিষদ। এর বাইরে স্বতন্ত্র প্রার্থীরাও অংশ নেন এ নির্বাচনে।

বুধবার (৩০ ডিসেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবের বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে৷ ক্লাবের সভাপতি সাইফুল আলমের সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদকের প্রতিবেদন উত্থাপন করেন ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ফরিদা ইয়াসমিন এবং কোষাধ্যক্ষের প্রতিবেদন পেশ করেন শ্যামল দত্ত।

শেয়ার করুন


Advertisement




Ads Manager

All Rights Resrved & Protected