মোদিকে দাড়ি কাটার জন্য ১০০ রুপি মানি অর্ডার করলেন চা বিক্রেতা মোদিকে দাড়ি কাটার জন্য ১০০ রুপি মানি অর্ডার করলেন চা বিক্রেতা

মঙ্গলবার, ২২ Jun ২০২১, ০৩:৪৪ পূর্বাহ্ন







মোদিকে দাড়ি কাটার জন্য ১০০ রুপি মানি অর্ডার করলেন চা বিক্রেতা

মোদিকে দাড়ি কাটার জন্য ১০০ রুপি মানি অর্ডার করলেন চা বিক্রেতা

মহারাষ্ট্রের বারামতীর বাসিন্দা
ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে দাড়ি কাটার জন্য ১০০ রুপি মানি অর্ডার করলেন মহারাষ্ট্রের বারামতীর বাসিন্দা অনীল মোরে নামের এক চা বিক্রেতা। তবে প্রধানমন্ত্রীকে অসম্মান করার কোনও অভিপ্রায় থেকে এই কাজ তিনি করেননি বলে জানিয়েছেন অনিল। ভারতীয় গণমাধ্যমের খবরে এমন তথ্য জানা গেছে।

গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়, ভারতের ইন্দাপুরে বেসরকারি একটি হাসপাতালের উল্টাদিকে ছোট্ট একটি চায়ের দোকান চালান অনীল। করোনার জেরে লকডাউনে সেই ব্যবসাতেও ভাঁটা পড়েছে। কোনোমতে এখন জীবন-যাপন করেন অনীল ও তার পরিবার।

সমপ্রতি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে উদ্দেশ্য করে অনিল জানান, অবশ্যই যেন তার দাড়ি কাটেন। যদি প্রধানমন্ত্রী কিছু বাড়াতেই চান তাহলে দাড়ি নয়, দেশে কাজের সুযোগ বৃদ্ধি করুন। করোনা টিকার হার বাড়ান।

তার কথায়, “প্রধানমন্ত্রী নিজের দাড়ি বাড়াচ্ছেন। যদি কিছু বাড়াতেই হয় তাহলে সেটা হওয়া উচিত দেশের কর্মসংস্থান। পাশাপাশি দেশে টিকাকরণের গতি বাড়ানো হোক। বাড়ানো হোক হাসপাতালের সংখ্যা। গত দুটি লকডাউনের ফলে সাধারণ মানুষকে যে দুর্দশার মধ্যে পড়তে হয়েছে, প্রধানমন্ত্রীর উচিত যাতে মানুষ এটা থেকে বেরিয়ে আসতে পারে সে চেষ্টা করা।”

অনিল পরিষ্কার জানিয়েছেন, দেশে প্রধানমন্ত্রীর স্থানই যে সর্বোচ্চ তা ভাল করেই জানেন তিনি। তার মতে, “আমি তাকে একশ’ রুপি পাঠিয়েছি, যাতে উনি নিজের দাড়িটা কেটে ফেলেন। কিন্তু উনি আমাদের মহান নেতা। প্রধানমন্ত্রীর প্রতি আমার পূর্ণ শ্রদ্ধা ও আস্থা রয়েছে। তার অবমাননা করার কোনও ইচ্ছাই আমার নেই। কিন্তু যেভাবে মহামারীর কবলে পড়ে দিনের পর দিন দেশের গরিব মানুষের সমস্যা বেড়েই চলেছে, তাতে এভাবে তার দৃষ্টি আকর্ষণ করা ছাড়া উপায় ছিল না।”

জানা যায়, তার চিঠিতে মোদির কাছে অনিল আরজি জানিয়েছেন, যারা করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন তাদের পরিবারগুলোকে ৫ লাখ টাকা করে সাহায্য করুক কেন্দ্রীয় সরকার। সেই সঙ্গে লকডাউনে বিধ্বস্ত পরিবারগুলোকেও দেওয়া হোক ৩০ হাজার টাকা।

সূত্র: ইন্ডিয়া টাইমস, নিউ ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস, দ্য উইক

শেয়ার করুন




All Rights Resrved & Protected